রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২
The Report
চার লক্ষ টাকার ত্রাণসামগ্রী নিয়ে বন্যার্তদের পাশে মাভাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা

চার লক্ষ টাকার ত্রাণসামগ্রী নিয়ে বন্যার্তদের পাশে মাভাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা

তানভীর আহমেদ
প্রকাশের সময় : June 22, 2022 | শিক্ষা ও প্রগতি

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের একটি দল সিলেটের সুনামগঞ্জে বন্যায় আক্রান্ত ৬০০ পরিবারের জন্য ত্রাণসামগ্রী নিয়ে রওনা হন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী ও জালালাবাদ স্টুডেন্ট এসোসিয়েশনের(সিলেট বিভাগীয় ছাত্র সংগঠন) শিক্ষার্থীরা বেশ কয়েকদিনের চেষ্টায় চার লক্ষ টাকা অর্থ সংগ্রহ করেন। 

আজ সকালে শিক্ষার্থীর দলটি সুনামগঞ্জের দুইটি এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করবে। সেখানে একটি দল সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার দোয়ারাবাজার পৌছাবে অন্য দলটি যাবে ছাতক উপজেলার  কুরবাননগর ইউনিয়নের নতুন ব্রাহ্মণগাঁও এ ত্রাণ সামগ্রী দেয়ার কথা রয়েছে। 

বন্যার্তদের জন্য ত্রাণসামগ্রী দিতে ২২ জুন রাত ৮ টায় তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব পরিবহনে (রক্তকরবী বাসে) সিলেটের উদ্দেশ্যে রওনা হন তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী, এলাকাবাসী ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে প্রায় সাড়ে চার লাখ টাকা সংগ্রহ করা হয়। টাকাগুলো দিয়ে সিলেটের বন্যার্ত ৬০০ পরিবারের জন্য ত্রাণসামগ্রী প্যাকেট করা হয়েছে। প্রতিটি প্যাকেটে রয়েছে-
তিন কেজি চাল, চিড়া দেড় কেজি, আধা কেজি ডাল,
এক কেজি আলু,খেজুর,বিস্কুট, চিনি, দুই লিটার পানি, পাঁচটি করে স্যালাইন, নাপা ট্যাবলেট (১০টি), সাবান একটি, গুড়া সাবান এক প্যাকেট,মোমবাতি (পাঁচটি) ও একটি গ্যাসলাইট। 

বিগত কয়েকদিনে বিশ্ববিদ্যালয়টির সাধারণ শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের আশে পাশের ও টাঙ্গাইল শহরের মানুষের কাছে টাকা উত্তোলন করেন তারা।

জালালাবাদ স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা জানান, "বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তারা আমাদের এ কাজে কাজে সহযোগীতা করেন। এলাকার মানুষজন আমাদের কাজে খুব ভাল সাড়া  দেয়। কয়েকটি স্কুলে গেলে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যেভাবে সাড়া দেয় তা আমাদের কাজ করায় আরো অনুপ্রেরণা জাগায়।" তিন দিনের প্রচেষ্টায় তারা চার লক্ষ টাকা উত্তোলনে সক্ষম হন। 

যে এলাকায় ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হবে,সেসব এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় নৌকা ভাড়া সহ বাকী আয়োজন সম্পন্ন করা আছে বলে জানান আয়োজকরা।