বুধবার, মে ২৫, ২০২২
The Report
বিজয় দিবস স্মৃতি সম্মাননা ২১ পেলেন তাড়াশের  মোক্তার হোসেন মুক্তা

বিজয় দিবস স্মৃতি সম্মাননা ২১ পেলেন তাড়াশের মোক্তার হোসেন মুক্তা

প্রকাশের সময় : December 29, 2021 | বাংলাদেশ

শিক্ষা ও সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য "জয় বাংলা সাংস্কৃতিক পরিষদ" এর পক্ষ থেকে "বিজয় দিবস স্মৃতি সম্মাননা -২০২১" পেলেন তাড়াশ উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা।

জয় বাংলা সাংস্কৃতিক পরিষদের আয়োজনে গতকাল মঙ্গলবার বিকালে ঢাকার কেন্দ্রীয় কচি-কাচার মেলা মিলনায়তনে " বিজয়ের ৫০ বছরে আমাদের প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা " শীর্ষক আলোচনা সভা,গুনীজন সংবর্ধনা আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ড. শামসুল আলম মোহন, মাননীয় প্রতিমন্ত্রী, পরিকল্পনা মন্ত্রালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। উদ্ভোদক হিসেবে উপস্থিত ছিলন, আলহাজ্ব এ্যাড, নুরুল আমিন রুহুল,মাননীয় সংসদ সদস্য চাঁদপুর-২। উপস্থিত ছিলেন সাবেক বিচার প্রতি, সাবেক উপাচার্য, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, এছারাও আরো অনেকে উপস্থিত ছিলন।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দের কাছ থেকে এই সম্মাননা এ্যাওয়ার্ড ও সনদপত্র গ্রহণ করেন তাড়াশ উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা। এর আগেও সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের জন্য একাধিক এ্যাওয়ার্ড ও সনদপত্র পেয়েছেন চেয়ারম্যান মোক্তার হোসেন মুক্তা । তিনি তাড়াশ উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে গত পাঁচ বছরে অবহেলিত জনপদের রাস্তা-ঘাট, স্কুল-কলেজ, মসজিদ-মন্দিরসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টেকসই উন্নয়ন ও করোনাকালীন বিশেষ ভূমিকা'সহ সমাজ সেবায় বিশেষ অবদান রাখায় রাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থা ও সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে তাকে বেশ কয়েকটি পদকে ভূষিত করেছেন।

মোক্তার হোসেন মুক্তা বর্তমানে সিনিয়র সহ-সভাপতি, তাড়াশ উপজেলা আওয়ামীলীগ। এছাড়াও ২০০৪ সালে তাড়াশ থানা থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিরাজগঞ্জ জেলা শাখার আহ্বায়ক কমিটির একমাত্র সদস্য নির্বাচিত হন এবং কেন্দ্রীয় ও জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দসহ সিরাজগঞ্জ জেলার প্রতিটি থানায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি গঠনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। । সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক এবং দপ্তর সম্পাদকের উপস্থিতিতে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের তাড়াশ উপজেলা শাখার সভাপতি কাউন্সিলরদের সরাসরি ভোটে নির্বাচিত হন। তিনি আরো বলেন, উপজেলার সবচেয়ে অবহেলিত জনপদ হিসেবে পরিচিত ছিল বারুহাস । বর্তমানে সরকারের ধারাবাহিক টেকসই উন্নয়নের মাধ্যমে ইউনিয়নের প্রতিটি রাস্তা ঘাট পাকা করণের ফলে বর্তমানে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে।