শুক্রবার, অক্টোবর ১৫, ২০২১
অ্যাসাইনমেন্টের শিরোনাম সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়া বাঞ্ছনীয়
শিক্ষার্থী

অ্যাসাইনমেন্টের শিরোনাম সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়া বাঞ্ছনীয়

টিএনএন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : August 24, 2021 | শিক্ষা ও প্রগতি

এটা সরকারের খুবই দূরদর্শী এবং প্রশংসনীয় উদ্যোগ।

চলমান করোনা সংকটকালে দেশব্যাপী অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম চলছে। এটা সরকারের খুবই দূরদর্শী এবং প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এর মাধ্যমে বেশির ভাগ শিক্ষার্থীকে পাঠে সংযুক্ত রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীরাও এ কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে মহা ব্যস্ততায় দিন কাটাচ্ছে। সরকারি হিসাবমতে, এসএসসি পর্যন্ত প্রায় ৯৩ শতাংশ শিক্ষার্থী অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছে। এইচএসসি পর্যায়েও এ সংখ্যা বেশি ছাড়া কম হবে বলে মনে হয় না। সরকারের পক্ষ থেকে এ রকম দূরদর্শী পরিকল্পনা গ্রহণ করে শিক্ষার্থীদের পাঠ্যবইয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত করায় আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।

তবে অ্যাসাইনমেন্টের বিষয় নির্ধারণ আমাদের শিক্ষার্থীদের মেধার মাপকাঠির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়া বাঞ্ছনীয় বলে মনে করি। আমাদের শিক্ষার্থীরা কীভাবে সহজে অ্যাসাইনমেন্ট তৈরি করতে পারে, অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে কাজ করা কর্মকর্তাদের সেদিকে নজর দেওয়া একান্ত জরুরি। ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিষয়ের ২ নম্বর অ্যাসাইনমেন্টের শিরোনাম ছিল ‘ভারতে মুসলিম শাসন প্রতিষ্ঠার সময় পরিক্রমা অনুযায়ী উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলির সংক্ষিপ্ত বিবরণসহ একটি পোস্টার পেপার তৈরি করো।’ এ পোস্টার পেপার নিয়ে শিক্ষার্থীদের সৃষ্টি হলো যত যন্ত্রণা! সাধারণত A4 সাইজের কাগজে অ্যাসাইনমেন্ট লিখতে বলা হয়েছে। কিন্তু শিক্ষার্থীরা কী পোস্টার তৈরি করবে, পেপারের সাইজ কত হবে, পোস্টারে কী কী আঁকা লাগবে, নাকি শুধু লেখা লাগবে ইত্যাদি প্রশ্নের মারপ্যাঁচে ঘুরপাক খেতে লাগল। আবার পৌরনীতি ও সুশাসন বিষয়ের ১ ও ২ নম্বর অ্যাসাইনমেন্টের নির্দেশক অংশের ‘ঙ’তে দেখা গেল ‘উপস্থাপন কৌশল’ নামক একটি নির্দেশক দিয়ে ৪ নম্বর বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এ অংশ কীভাবে মূল্যায়ন করা হবে, তা নিয়েও শিক্ষার্থীদের শঙ্কা রয়েছে।